মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৮, ২০১৭

অবৈধ অভিবাসীদের সৌদি ছাড়তে নানা সচেতনতামূলক প্রচারণা শুরু



আগামী তিন মাসের মধ্যে সকল অবৈধ অভিবাসীদের সৌদি আরব ছেড়ে যাওয়ার জন্য সচেতনতামূলক প্রচারণা শুরু করেছে সৌদি সরকার। সৌদি সরকারের বেধে দেয়া সময়ের মধ্যেই কেউ দেশে ফিরে গেলে তাকে আর ক্ষতিপূরণ দিতে হবে না বলেই জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

‘এ ন্যাশন উইদাউট ভায়োলেন্স’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এই প্রচারণায় বলা হয়েছে, কোনো অবৈধ অভিবাসী বৈধ হতে চাইলে অন্তবর্তীকালীন সময়ের ভিতরে এই সুযোগ তারা গ্রহন করতে পারে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, যারা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে সৌদি আরবে আছেন এবং অভিবাসন ও শ্রম আইন ভঙ্গ করেন নি তারা কোন ক্ষতিপূরণ ছাড়াই দেশ ছেড়ে যেতে পারবে। এই ক্যাম্পেইনের মূল উদ্দেশ্য হলো অবৈধ অভিবাসীরা যেনো এই দেশে আর ফেরত না আসতে পারে। এই জন্য অবৈধ অভিবাসীদের আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে দেশ ছেড়ে যেতে বলা হয়েছে।

সৌদি পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষ এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, সকল অবৈধ অভিবাসীকে দেশ ছেড়ে চলে যাবার সময় অবশ্যই আগুলের ছাপ দিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও আরও জানানো হয় যে, সৌদি আরবে যে সকল অবৈধ প্রবাসী কোনো প্রকার সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ছিলো তারাও যদি এই তিন মাসের মধ্যে দেশ ছেড়ে চলে যায়, তাহলে তাদের সাধারণ ক্ষমা করা হবে।

প্রচারণায় আরো বলা হয়েছে, বৈধ অভিবাসীদের যদি ইকামা বা কাজের অনুমতি না নেওয়া থাকে তাহলে অতিদ্রুত তা ঠিক করে নিতে হবে। এছাড়াও যে সকল অবৈধ প্রবাসীরা কোম্পানির অনুমতি ছাড়া ছুটি নিয়েছে বা যাদের কাজের বৈধতা নেই তারাও সময়ের মধ্যে কোনো প্রকার ক্ষতিপূরণ ছাড়াই দেশ ত্যাগ করতে পারবে।

পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জেনারেল সোলাইমান ইয়াহিয়া সৌদি আরবের এক গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, সৌদি আরবের আবাসন আইন ভঙ্গ করলে পনের‘শ সৌদি রিয়াল থেকে এক লাখ সৌদি রিয়ার জরিমানার বিধান রয়েছে।

শেয়ার করুন

0 comments: