সোমবার, জুন ০৫, ২০১৭

হেফাজত থেকে শাহবাগ ‘ভাস্কর্য না থাকলে মসজিদও থাকবেনা’ ‘সমালোচনার’ জবাব প্রধানমন্ত্রীর

মন্ত্রীর ‘সমালোচনার’ জবাবও বাদ পড়েনি প্রধানমন্ত্রীর আলোচনায় । ভাস্কর্য ইস্যুতে সব প্রশ্ন আর সমালোচনার এক এক করে সব  শক্ত জবাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ।

রোববার রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান শেষে প্রেসক্লাবের ভিআইপি মিলনায়তনে দুই সংগঠনের নেতা ও সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। সংক্ষিপ্ত আলোচনা শেষে বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম মুফতি মিজানুর রহমান মোনাজাত পরিচালনা করেন। ইফতার মাহফিল শেষে প্রধানমন্ত্রী সেখানে নামাজ আদায়ের পর ঘণ্টাব্যাপী মতবিনিময়ে সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি।
চলমান ইস্যু হেফাজতে ইসলাম ও ভাস্কর্য্য ইস্যু নিয়ে বক্তব্যের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। হেফাজত কিংবা অন্য যেকোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আদর্শে ভিন্নতা ও মতবিরোধ থাকলেও সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রেখে দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের স্বার্থে এই দেশের অভিভাবক হিসেবে যা ভালো মনে করেছি তাই করেছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘যারা হেফাজতের সঙ্গে সরকার হাত মিলিয়েছে, চেতনা গেল গেল বলে গলা ফাটাচ্ছেন; ৫ মে রাতে যখন হেফাজত শাপলা চত্বর দখল করেছিল তখন তারা কোথায় ছিলেন? তারা কী চেতনাবোধ থেকে সেদিন রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। ভাবতে পারেন আর কয়েক ঘণ্টা হেফাজতের দখলে থাকলে দেশের কী অবস্থা হতো। সেদিন আমি নিজস্ব চিন্তা-ভাবনা থেকে যা যা করণীয় তা করে হেফাজতমুক্ত করেছিলাম। সবার মধ্যে আতঙ্ক ছিল কী হবে কী হবে? পরদিন অনেক মন্ত্রিসভার সদস্য ভয়ে সচিবালয়মুখীও হননি।’


শেয়ার করুন

0 comments: