শনিবার, জুন ১৭, ২০১৭

৬৩৫ মিলিয়ন দিরহাম চুরির চেষ্টা নস্যাৎ করে দিয়েছে

আবুধাবি পাবলিক ফান্ড প্রসিকিউশান, সি আই ডি এর সহযোগিতায় আইটি টেকনোলজি ব্যবহার করে এক ব্যাংক থেকে ৬৩৫ মিলিয়ন দিরহাম চুরির চেষ্টা নস্যাৎ করে দিয়েছে।  দুইটি এজেন্সী ২৪ ঘণ্টা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাথে কাজ করে এই দিরহাম উদ্ধার করতে সমর্থ হয়। প্রাথমিকভাবে এই চুরির সাথে জড়িত ৬ জনকে আটকের পর তাদের তথ্যের ভিত্তিতে তারা এই কাজের সাথে জড়িত আরো ৩৮ জন এশিয়ান ও ইউরোপিয়ানকে আটক করে। আবুধাবি' এটর্নি জেনারেল কাউন্সেলর আলী মোহাম্মদ আল বালুশি বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সার্বিক সহযোগিতা এবং আন্তরিকতার কারনে এই কাজ সম্ভব হয়েছে। তিনি নিরাপত্তা টিমের দক্ষতা এবং সর্ব অবস্থায় এ ধরনের চুরি প্রতিরোধে সতর্ক থাকার জন্য সকলের প্রশংসা করেন। তিনি আরো বলেন এই প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়াই প্রমাণ করে আবুধাবি তথা আমিরাত ওয়ার্ল্ড কম্পিটিটিভনেস ইনডেক্সে বসবাস এবং বিনিয়োগের জন্য কেন বিশ্বে এবং এই রিজিয়নে সবচেয়ে পছন্দের।
    
তিনি বলেন, এই অপরাধীদেরকে ইলেকট্রনিক ক্রাইম এর আইনে বিচার করা হবে। সম্প্রতি সংশোধনকৃত পেনাল কোড অনুযায়ী ব্যাংকের টাকাকে সরকারি টাকা হিসেবে গণ্য হবে যখন সরকার এখানে পুরো কিংবা আংশিকভাবে মূলধন বিনিয়োগ করবে। এই মামলায় জানা যায়, একটি ব্যংক তাদের একটি একাউন্ট থেকে সন্দেহজনক টাকা উত্তোলন হচ্ছে বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে জানায়, পাবলিক ফান্ড প্রসিকিউশান সাথে সাথে ঐ টাকা ফ্রিজ করে দিতে বলে যা এইমাত্র তোলা হয়। তদন্তে জানা যায় ব্যাংকের এক কর্মকর্তা আরেকজন কর্মকর্তার পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে ইলেক্ট্রনিক অনলাইন সিস্টেম ব্যবহার করে বিভিন্ন অংকের ৬৩৫ মিলিয়ন দিরহাম অন্য ৫টি ব্যাংকের ৫টি কোম্পানির একাউন্টে ট্র্যান্সফার করে। এই চুরির লেনদেন তখনই করা হয় যখন সকালে প্রথম ব্যাংকিং লেনদেন শুরু হয়, কিন্তু যে একাউন্ট থেকে টাকা ট্র্যান্সফার হয় ঐ একাউন্টে পর্যাপ্ত টাকা এই ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়। টাকা ট্র্যান্সফার করার পর ইলেকট্রনিক সিস্টেম তা কার্যকর করতে একটু সময় নেয় কিন্তু তারা এই প্রসেসিং সময়ের আগেই অর্থাৎ টাকা ট্রান্সফারের সাথে সাথে ঐ টাকা তুলতে গেলে ঘটনা ধরা পড়ে। তদন্তে এই চুরির সাথে বড় বড় কিছু কোম্পানির কর্মচারী এবং ব্যাংক কর্মকর্তা জড়িত বলে প্রমাণ হয় যারা সবাই এই টাকা থেকে ভাগ পেত। পাবলিক ফান্ড প্রসিকিউশান এই ধরনের চুরির টাকা থেকে ক্রয়কৃত ৬০০০ স্মার্ট ফোন জব্দ করেছে যার মুল্য ১০ মিলিয়ন দিরহাম।


শেয়ার করুন

0 comments: