শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৮

দুবাইয়ের কন্ডিশনও সাকিবদের প্রতিপক্ষ


দুবাইয়ে কাল শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হয়ে এশিয়া কাপ অভিযান শুরু করবে বাংলাদেশ। দুবাইয়ের কন্ডিশন ম্যাচটা হবে যথেষ্ট কঠিন। গ্রুপপর্ব টপকাতে সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে বলেই মনে করেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান

আরব আমিরাতে ২৩ বছর পর ফিরছে এশিয়া কাপ। উপলক্ষটা স্মরণীয় করে রাখতে আনকোরা নতুন দুটি উইকেট বানানো হয়েছে দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। সেখানকার প্রধান কিউরেটর টম লুমসডেন জানিয়েছেন, নতুন দুটি উইকেট বানানো হয়েছে সামনের ব্যস্ত সূচি মাথায় রেখে যেখানে এশিয়া কাপও প্রাধান্য পাচ্ছে। কাল দুবাইয়ে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচটা হতে পারে পারে এই নতুন উইকেটেই।

মাশরাফি-ম্যাথুসদের মুখোমুখি হওয়ার মধ্য দিয়ে কাল শুরু হবে এশিয়া কাপ। শ্রীলঙ্কান সংবাদমাধ্যমকে লুমসডেন জানিয়েছেন, ‘এশিয়া কাপে বড় দলগুলোর কথা মাথায় রেখে আমরা মানসম্মত উইকেট বানানোর পরিকল্পনা করি। এখানে সাধারণত প্রথম ইনিংসে গড় স্কোর ২৬০। আশা করি আমরা এটি ২৭০-তে উন্নীত করতে পারব। তবে সেপ্টেম্বরের এই সময়ে সেটি করা কঠিন।’

সেপ্টেম্বরের এই সময়ে দুবাইয়ের কন্ডিশন উষ্ণ ও আর্দ্র। লুমসডেনের মতে, এশিয়া কাপের কন্ডিশন ঠিক করে দেবে দুবাইয়ের আবহাওয়া। দিনের বেলায় গরম, রাতে আর্দ্রতার সঙ্গে শিশিরও পরে। দুবাই স্টেডিয়ামের এই কিউরেটর জানালেন, ‘বিকালের দিকে কিছুটা পেসবান্ধব কন্ডিশন থাকবে। রাতে সুইং হতে পারে আর সন্ধ্যায় বল “গ্রিপ” করার সঙ্গে স্পিনও করবে।’

দুবাইয়ে সবার আগে পা রাখা দলটি বাংলাদেশ। শহরটির স্পোর্টস সিটিতে আইসিসি একাডেমিতে অনুশীলনের তাঁবু খাটিয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। এখানে অনুশীলন করার সময় বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে লঙ্কান সংবাদকর্মীরা প্রশ্ন করেছিলেন, এশিয়া কাপ জেতার স্বপ্ন দেখছেন কি না? সাকিবের জবাব দিয়েছেন কূটনৈতিক ঢংয়ে, ‘সফলতা পেতে হলে সবার আগে নিজেদের কাজগুলো ঠিক রাখতে হবে। তাই আমরা ট্রফি জয় নিয়ে ভাবার চেয়ে নিজেদের কাজগুলো নিয়েই বেশি মনোযোগী।’

গ্রুপপর্বেই কঠিন বাধা দেখছেন সাকিব। সেমিফাইনালে উঠতে যে সেরা ক্রিকেটই খেলতে হবে সে কথাও জানিয়ে রাখলেন তিনি, ‘আমরা আশাবাদী। ওয়েস্ট ইন্ডিজে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ ভালো কেটেছে। গ্রুপের বাকি দুটি দল (শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান) ভালো ক্রিকেট খেলছে। বিশেষ করে ৫০ ওভারের সংস্করণে। গ্রুপপর্ব টপকাতে আমাদের তাই সেরা ক্রিকেটই খেলতে হবে।’

এই গ্রুপপর্বেই বাংলাদেশের প্রথম প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। দলটিকে প্রাপ্য সম্মান দিয়েই হারানোর কৌশলটা বলে দিলেন এই তারকা অলরাউন্ডার, ‘শ্রীলঙ্কা খুব ভালো দল। ম্যাচ জেতানোর মতো তাঁদের বেশ কিছু খেলোয়াড় রয়েছে। তাই দু-একজন খেলোয়াড়ের ওপর আলাদা করে নজর রাখলে হবে না। এগারোজন খেলবে এবং তাঁদের সবার বিপক্ষেই আমাদের ভালো খেলতে হবে।’

কাল এই কৌশল মাঠে ফলানোর চ্যালেঞ্জ নিতে হবে সাকিবদের। দেখা যাক, শুভ সূচনা হয় কি না।

শেয়ার করুন

0 comments: