বুধবার, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১৮

ঢাকায় চালক ও যাত্রীদের নিরাপত্তায় উবারের অভিনব উদ্যোগ

চালক ও যাত্রী উভয়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আরও একটি অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করলো বিশ্বের সর্ববৃহৎ অন ডিম্যান্ড রাইড শেয়ারিং কোম্পানি উবার।

এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার থেকে বাংলাদেশে উবারমটোর চালকদের মাঝে হেলমেট ও সেফটি জ্যাকেট বিতরণ শুরু করেছে এই রাইড শেয়ারিং কোম্পানিটি।

ব্যতিক্রমী “সেফটি টুলকিট” চালু করার এক সপ্তাহেরও কম সময়ের ব্যবধানে উবার কর্তৃপক্ষকে চলতি সপ্তাহ থেকে চালকদের মাঝে হেলমেট ও সেফটি জ্যাকেট বিতরণ করতে দেখা যাবে।
ঢাকায় চালক ও যাত্রীদের নিরাপত্তায় উবারের অভিনব উদ্যোগ। ছবি: উবার

চলতি মাসের মধ্যে উবারমটো চালকদের মাঝে প্রায় ৩ হাজারেরও বেশি সেফটি প্যাকস (নিরাপত্তা উপকরণ) বিতরণ করা হবে। প্রতিটি সেফটি প্যাকে থাকবে:

• দুটি হেলমেট (একটি চালকদের অন্যটি যাত্রীদের। যাত্রীরা যাত্রা শেষে হেলমেটটি চালকের কাছে ফেরত দেবেন)।

• একটি বাতাস প্রতিরোধক নিরাপত্তা জ্যাকেট।• একটি উজ্জ্বল রঙের টি-শার্ট।

এছাড়াও যেসব চালকদের মাঝে এসব সেফটি প্যাক বিতরণ করা হবে বাড়তি সুবিধা হিসেবে তাদের সড়ক নিরাপত্তার বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে উবারের রিজিওনাল জেনারেল ম্যানেজার প্রভজিৎ সিং বলেন, উবারে যাত্রী ও চালকদের নিরাপত্তার বিষয়কে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়।

প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নতুন নতুন উদ্ভাবন চালু করা এবং চালক ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করায় আমরা স্বতন্ত্র অবস্থানে আছি।

চালক ও যাত্রী উভয়ের জন্য ইন্স্যুরেন্স সুবিধা চালু করা থেকে শুরু করে অ্যাপের মধ্যেই সেফটি টুলকিট চালু করার মাধ্যমে আমরা সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই।

এছাড়াও আমরা বৈশ্বিক গবেষণা ও পণ্য সুবিধা ব্যবহার করে স্থানীয় সমস্যা সমাধানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

তিনি বলেন, আমাদের এই ক্যাম্পেইনের উদ্দেশ্য শুধুমাত্র চালক ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা নয়, বরং সড়কে নিরাপত্তা উদ্যোগের গুরুত্ব তুলে ধরা এবং সচেতনতা সৃষ্টি করাও আমাদের উদ্দেশ্য।

প্রসঙ্গত, নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কয়েকদিন আগে বাংলাদেশে ‘সেফটি টুলকিট’ (সব নিরাপত্তা ফিচার একই বাটনে) চালু করে উবার। সেফটি টুলকিট চালুর উদ্দেশ্য হলো, উবার অ্যাপে চালু করা সেফটি ফিচারগুলো যাত্রীদের দৃষ্টিগোচর হওয়া।

পুরাতন এবং নতুন উভয় ফিচারগুলোর ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধিতেও সহায়ক এই টুলকিটটি। চালক ট্রিপ গ্রহণ করার সাথে সাথে অ্যাপের হোম স্ক্রিনে ভেসে উঠবে সেফটি টুলকিট অপশনটি, যা ট্রিপ শেষ হওয়া পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে।

এছাড়াও, সেফটি টুলকিট ফিচারটির মাধ্যমে ইমার্জেন্সি বাটনের সাহায্যে যাত্রীরা যেকোনো জরুরী প্রয়োজনে সরাসরি ৯৯৯ কল করে পুলিশ কন্ট্রোল রুমের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।

সড়কে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গভীর রাতে (রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত) উবারমটোর সার্ভিস বন্ধ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে উবার কর্তৃপক্ষ।

এই সময়ে যাত্রীরা উবারমেটোর কোনো ট্রিপ নিতে পারেন না। এছাড়া ট্রিপ চলাকালীন সময়ে পরবর্তী ট্রিপের জন্য ফোনের শব্দ বা কল আসার মাধ্যমে চালকরা যাতে বিভ্রান্ত না হন সেজন্য ফরওয়ার্ড ডিসপ্যাচ (রাইড সহজলভ্য) সুবিধা রাখা হয়নি।

এর আগে চালক ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে উভয়ের জন্য ফ্রি ইন্স্যুরেন্স সুবিধা চালু করে উবার কর্তৃপক্ষ।

এ সুবিধার আওতায় উবার অ্যাপ ব্যবহার করে ট্রিপ চলাকালে দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে, স্থায়ীভাবে পঙ্গু হয়ে গেলে অথবা হাসপাতালে চিকিৎসা নিলে চালক বা যাত্রীদের সমপরিমাণ অর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করবে উবার।

শেয়ার করুন

0 comments: